কাবুল, আমি ফিরে গেলাম

কাবুল, আমি ফিরে গেলাম

কাবুল, আমি ফিরে গেলাম

কাবুল, আমি ফিরে গেলাম 1024 686 সীমানা ছাড়িয়ে

কাবুল, আমি ফিরে গেলাম
************************

বাগ-এ-বাবরের সামনে সাঁজোয়া গাড়ির সারি,
নিঃশব্দ দুপুরের স্তব্ধতা ভেঙে ডেকে উঠল এক চিল।
কাবুল, আমি ফিরে গেলাম।

তোমার বাজারের সর্পিল পথে একবার দেখতে তোমায়,
পিঠে করে কত মোট বয়েছি!
মিসাইলে ক্ষতবিক্ষত, ঠোকর খাওয়া রাজপথের
গলিতে, একবার তোমায় চুমু খেতে
কতবার বাজি রেখেছি জীবন।
সেইসব গলিতে আজ, রইল আমার তামাকের পোড়া গন্ধ।
দার-উল-আমানের লণ্ঠনের ভাঙা কাঁচে,
রুশ আমলার গুঁড়িয়ে যাওয়া বাড়ির ভগ্নস্তুপে,
হেলমন্দের তীরে ভেসে আসা হিন্দুকশের শুকনো বাতাসে,
অমর হয়ে থাকুক তোমার আমার কাহিনী।

হে কাবুল, তোমার বুকে চেনা বন্দুক কাঁধে
আজ অচেনা মুখের সারি,
চোখে তাদের হিমযুগের আশ্বাস।
ছুটতে ছুটতে আমি শুনতে পাচ্ছি
খুলি ফাটার শব্দ, ধর্ষিতার চিৎকার,
বন্দুক কাঁধে জেহাদি কিশোরের উল্লাস।
হে অজেয় কাবুল আমার, তোমার পথের পাশে
বোমায় টুকরো হওয়া পাথরের টুকরোগুলো
গর্ব করে বুকে ধরে রেখেছে আজও,
সোভিয়েত আর আমেরিকার ঔদ্ধত্য ভাঙ্গার হাহাকার।

কথা দিয়েছিলে কবিতা লিখতে শেখাবে তুমি,
তোমাকে নিয়ে ভাঙা ভাঙা পুস্তু ভাষায় লেখা
অপটু কবিতা আমার, মনে রাখবে তো!
শেষ বিদায়ের আগে একবার খোল তোমার মুখ,
তোমার জিভে লেগে থাকা হাজার বছরের
অস্থিরতার স্বাদে
অমরত্ব পাক, তোমাকে আবার পাওয়ার স্বপ্ন।
কাবুল, আমি ফিরে গেলাম।

দেবাঞ্জন বাগচী।

Summary
Article Name
কাবুল, আমি ফিরে গেলাম
Author

Leave a Reply

Solve : *
18 ⁄ 6 =